আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়

ডায়াবেটিস কি? রক্তে গ্লুকোজ কেন বাড়ে?

1 min read
ডায়াবেটিস

আমরা যে সব খাদ্য গ্রহণ করি তার শর্করা জাতীয় অংশ পরিপাকের পরে সিংহভাগ গ্লুকোজ হিসেবে রক্তে প্রবেশ করে। আর দেহকোষগুলি প্রয়োজনীয় শক্তি উৎপাদনের জন্য গ্লুকোজ গ্রহণ করে। অধিকাংশ দেহকোষই এই গ্লুকোজ গ্রহণের জন্য ইনসুলিন নামক এক প্রকার হরমনের উপর নির্ভরশীল।

ডায়াবেটিস হ’ল ইনসুলিনের সমস্যাজনিত রোগ। ইনসুলিন কম বা অকার্যকর হওয়ার জন্য গ্লুকোজের ঘাটতি এবং রক্তে গ্লুকোজের বাড়তি হয় এই সামগ্রিক অবস্থাই হচ্ছে ডায়াবেটিস মেলাইটাস ।

যদি কারো রক্তে  গ্লুকোজ নির্দিষ্ট মাত্রার বেশি হলেই তাকে ডায়াবেটিস রোগী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। এই মাত্রা গুলি হলো অভূক্ত অবস্থায় রক্তের প্লাজমায় প্রতিলিটর ৭.০ মিলিমোল বা তার বেশি অথবা অভূক্ত অবস্থায় রক্তের প্লাজমায় প্রতিলিটারে ১১.১ মিলি বা তার বেশি হলে।

 

রক্তে গ্লুকোজ কেন বাড়ে?

অগ্ন্যাশয় নামক একটি হরমোন নামে একটি হরমোন নিঃসৃত হয়। এই ইনসুলিন কোন কারণে কম বা অকার্য়কর হলে

রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ বেড়ে যায় এবং অতিরিক্ত গ্লুকোজ প্রস্রাবের সাথে বেরিয়ে আসে।

একজন স্বাভাবিক মানুষের সাথে ডায়াবেটিক রোগীর তুলনা চিত্র দিয়ে এটা বোঝানো যেতে পারে:

 

এই রোগ সাধারণত বংশগত ও পরিবেশ গত দুটোই দায়ী। কদাচিৎ কোন কোন বিশেষ অসুখ থেকেও হতে পারে।

শক্তির জন্য দেহে শর্করা, আমিষ ও চর্বি জাতীয় খাদ্যের প্রয়োজন।

ডায়াবেটিস হলে শর্করা ও অন্যান্য খাবার সঠিকভাবে শরীরের কাজে আসে না।

ডায়াবেটিস হলে অগ্ন্যাশয় থেকে প্রয়োজন মতো কার্যকরী ইনসুলিন নামের রস নিঃসরণ হয় না

বা এর কার্যকারিতা হ্রাস পায় বলে দেহে শর্করা, আমিষ ও চর্বি জাতীয় খাদ্যের  বিপাকও সঠিক হয় না।

ডায়াবেটিস ছোঁয়াচে বা সংক্রামণ রোগ নয়।