tag: ১০০০ একর জঙ্গল দত্তকের ঘোষণা প্রভাসের। আমাদের খবর
Tue. Oct 20th, 2020

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়

১০০০ একর জঙ্গল দত্তকের ঘোষণা প্রভাসের।

1 min read
১০০০ একর জঙ্গল দত্তকের ঘোষণা প্রভাসের

১০০০ একর জঙ্গল দত্তকের ঘোষণা প্রভাসের। গ্রিন ইন্ডিয়া চ্যালেঞ্জ দিয়ে ছিলেন প্রবীণ ভারতীয় তেলুগু অভিনেতা কৃষ্ণম রাজু উপ্পলাপতি। তা গ্রহণ করলেন বলিউড কাপানো বাহুবলীর সফল নায়ক প্রভাস রাজু  উপ্পলাপতি। ‘বাহুবলী’তে অভিনয়ের পর থেকে তুঙ্গে এই সফল অভিনেতার জনপ্রিয়তা বিশ্বজুড়ে।

 

প্রভাস রাজু উপ্পলাপতির জন্ম ১৯৭৯ সালের ২৩ অক্টোবর ভারতের অন্ধ্র প্রদেশে। পেশায় তিনি ভারতের বলিউড জনপ্রিয় অভিনেতা।

২০০৩ সাল থেকেই তিনি তেলুগু ভাষায় অভিনয় করে আসছেন।

তিনি কী করছেন, তা নিয়ে ভক্তদের সব সময়ই কৌতূহল থাকে। নতুন খবর হলো, প্রভাস রাজু উপ্পলাপতি টিআরএস সাংসদ জে সন্তোষ কুমারের মস্তিষ্ক প্রসূত গ্রিন ইন্ডিয়া চ্যালেঞ্জের তৃতীয় দফার সূচনা করেন হায়দরাবাদে নিজের বাসভবনে তিনটি গাছ লাগানোর মধ্য দিয়ে।

সন্তোষ কুমারের উপস্থিতিতে বৃক্ষরোপণ করে তিনি একটি বড় ঘোষণাও দিয়েছিলেন। তা হলো, সন্তোষ কুমার যেখানে বলবেন, সেখানেই তিনি ১ হাজার একর জঙ্গলের জমি দত্তক নেবেন তার উন্নয়ন ঘটানোর জন্য।

প্রভাস রাজু উপ্পলাপতি বলেন, সন্তোষ কুমার যে ফরেস্ট ডেভেলপমেন্টের উদ্যোগ নিবেন, তাতে আমি খুবই অনুপ্রাণিত হয়েছি।

জঙ্গল দত্তক

তিনি ওই জঙ্গল দত্তক নিয়েছেন। প্রভাস অন্যদেরও ওই সাংসদের দৃষ্টান্ত অনুসরণের আবেদন করে আশা প্রকাশ করেছেন যে, তার অনুগামীরা গোটা রাজ্যে, অন্যত্রও গাছ লাগানোর কর্মসূচিতে সামিল হয়ে কোটি কোটি বৃক্ষরোপন করবেন।

রামচরণ, রানা দাগুবতী, শ্রদ্ধা কাপুরের মতো অভিনেতা, অভিনেত্রীদের এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণের আবেদন করেন প্রভাস।

সন্তোষ কুমার নায়কের প্রশংসা করে বলেন, প্রভাস রাজু উপ্পলাপতি হৃদয়বান, নরম মনের মানুষ, সামাজিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলি ভাল বোঝেন।

গ্রিন ইন্ডিয়া চ্যালেঞ্জ গ্রহণ ও বন জঙ্গল সংরক্ষণের প্রস্তাব দারুণ উৎসাহব্যাঞ্জক।

প্রভাস এই কর্মসূচির তৃতীয় দফার সূচনা করায় তিনি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

বলিউডের আরো খবর পেতে পড়ুন আমাদের খবরঃ নোরা ফাতেহি প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি ছবিতে

প্রভাস রাজু উপ্পলাপতির অভিনীত জনপ্রিয় কিছু সিনেমা ২০০২ সালে – এশওয়ার, ২০০৩ সালে- রাঘভেন্দ্রা, ২০০৪ সালে- ভার্শাম, আদাভি রামুদু।

২০০৫ সালে- চক্রাম এবং ছত্রপতি, ২০০৬ সালে- পৌরনামী, ২০০৭ সালে- যোগী এবং মুন্না।

২০০৮ সালে- বুজ্জিগাদু, ২০০৯ সালে- বিল্লা এবং এক নিরাঞ্জন, ২০১০ সালে- ডার্লিং।

২০১২ সালে মিস্টার পারফেক্ট, র‌্যাবেল এবং ডেনিকাইনা রেডি, ২০১৩ সালে- মির্চি।

২০১৪ সালে- অ্যাকশন জ্যাকশন, ২০১৫ সালে- বাহুবলীঃদ্য বিগিনিং এবং ২০১৭ সালে বাহুবলীঃ দ্য কন্‌ক্লুশন, ২০১৯ সালে- সাহো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *