April 23, 2021

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়


Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/customer/www/amaderkhabor.com/public_html/wp-content/themes/newsphere/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

লিওনেল মেসি বার্সা ছাড়ছেন যে পাঁচ কারণে।

1 min read
লিওনেল মেসি বার্সা ছাড়ছেন যে পাঁচ কারণে

লিওনেল মেসি বার্সা ছাড়ছেন যে পাঁচ কারণে। লিওনেল মেসি মঙ্গলবার রাতে ফ্যাক্স বার্তায় বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দিলে তোলপাড় শুরু হয় ফুটবল বিশ্বে। মেসি কি সত্যি বার্সা ছেড়ে চলে যাবেন নাকি ১৯ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করার আগে আরেকবার ভাববেন। সেটার উত্তর দেবে সময়, শীর্ষ স্থানীয় স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক ‘স্পোর্ট’ মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দেয়ার পেছনে পাঁচটি বিষয়কে কারণ হিসেবে দেখিয়েছে।

 

১.বোর্ডের সঙ্গে টানাপোড়ন

বার্সেলোনা বোর্ডের সঙ্গে মেসির শীতল সম্পর্কটা গত কয়েক বছরে নানা কারণে উন্মুক্ত হয়ে গেছে। ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে হোসেপ মারিয়া বার্তোমেউয়ের সভাপতিত্বের মেয়াদ শুরুর পর থেকেই বোর্ডের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতির শুরু মেসির। আর্জেন্টাইন মহাতারকার স্পষ্ট বার্তা, ‘হয় ক্লাবে পরিবর্তন; না হয় বার্সেলোনা ছেড়ে অন্য ক্লাবে নাম লেখাবেন।’ চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোয়ার্টার ফাইনালে ৮-২ গোলে হারের পর বার্সেলোনার আমূল পরিবর্তনটা সময়ের দাবি হয়ে দাড়িয়েছে।

২.এরনেস্তো ভালভার্দেকে বরখাস্ত

বার্সেলোনার কোচ নিয়োগে লিওনেল মেসির একটা ভূমিকা থাকে। ২০১৭ সালে লুইস এনরিকে দায়িত্ব ছাড়ার পর দায়িত্ব পান এরনেস্তো ভালভার্দে। সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে লা লিগায় শীর্ষে থাকা অবস্থায় ভালভার্দেকে বরখাস্ত করে বার্সেলোনা। ভালভার্দেকে বরখাস্তে রাজি ছিলেন না লিওনেল মেসি।

কিকে সেতিয়েনকে নিয়োগ দেয়া নিয়েও মেসি এবং অন্যান্য সিনিয়র ফুটবলারদের মতামতকে গুরুত্ব দেননি বোর্ড পরিচালকরা।

৩.ক্লাবের পরিকল্পনায় অসন্তোষ

বার্সেলোনা প্রতি মৌসুমেই মোটা অঙ্ক খরচ করে খেলোয়াড় দলে আনেন। দলে আসা ফুটবলারদের বেশিরভাগই কাতালান ক্লাবটির জার্সিতে নিজেদের মেলে ধরতে ব্যর্থ। নেইমারকে ২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে বিক্রির টাকা সঠিক ব্যবহার নিয়েও প্রশ্ন তোলেন মেসি। খেলোয়াড় কেনা ও সুস্পষ্ট পরিকল্পনা না থাকায় এক সময়ের সতীর্থ ও সদ্য বরখাস্ত হওয়া ক্রীড়া পরিচালক এরিক আবিদালের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়ান মেসি।

৪.লুইস সুয়ারেজের সঙ্গে ক্লাবের বাজে আচরণ

উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজের সঙ্গে মেসির বন্ধুত্ব সবার জানা। ২০১৪ সালে ন্যু ক্যাম্পে আসার পর ক্লাবের জন্য উজাড় করে খেলেছেন। বয়সের কারণে আগের মতো গতি আর ক্ষিপ্রতা নেই সুয়ারেজের। ৩৩ বছর বয়সী সুয়ারেজের সঙ্গে আরো এক মৌসুম চুক্তি রয়েছে বার্সেলোনার। মোটা অঙ্ক পারিশ্রামিক পাওয়া উরুগুইয়ান তারকাকে বেচে দিতে চায় কাতালানরা। পেশাদার ফুটবলে যা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু নূন্যতম সম্মান না দেখিয়ে সুয়ারেজকে ক্লাব খুঁজতে বলায় বার্সেলোনার উপর বেজায় চটেছেন মেসি। তিনি মনে করেন, সুয়ারেজকে বিষয়টি সম্মানের সঙ্গে বলা যেতে পারতো।

৫.সেরা দল বানানোয় পরিকল্পনাহীন

বয়সটা ৩৩ চলছে। মেসি শুধু সময়ের সেরাই নয় সর্বকালের সেরাদের একজন।

ক্যারিয়ারের সায়হ্নে এসে বর্ণিল বিদায় নিশ্চয় চাইবেন রেকর্ড ছয়বারের বিশ্বসেরা ফুটবলার।

কিন্তু ভঙ্গুর বার্সেলোনার সেরা দল বানানোর পরিকল্পনা মেসির কাছে যথেষ্ট মনে হয়নি।

নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যানের সঙ্গে বৈঠকের পর তাই অসন্তোষ ভঙ্গিতে বের হয়ে আসেন মেসি।

এরকম একটা পরিস্থিতিতে পড়তে হবে সেটা কল্পনাও করেননি বার্সেলোনা তো বটেই ক্রীড়া ইতিহাসেরই সেরাদের একজন লিওনেল মেসি।

আরো পড়ুনঃ পদ্মা সেতুর কাজ শেষ হবে ২০২২ সালে।

 

ক্লাবকে বিশ্বসেরার কাতারে পৌঁছে দিতে মেসির ভূমিকা সবার জানা।

তিনি একাধিকবার বলেছেন, বার্সেলোনার জার্সিতেই খেলতে চান ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।

কিন্তু নানা বিষয় মেসির বার্সেলোনায় থেকে যাওয়ার জন্য বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

মেসি যদি ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ অথবা ইতালিয়ান সিরি আ’য় গিয়ে সাফল্যের সঙ্গে ক্যারিয়ার শেষ করতে পারেন।

সর্বকালের সেরা হওয়ার পথে আরো একধাপ এগিয়ে যাবেন।

শেষ পর্যন্ত যদি মেসির ক্লাব বদল ঘটেই যায় ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ঘটনা হয়ে যাবে। যার রেশ চলবে কয়েকবছর।

আরো পড়ুনঃ লিওনেল মেসি ফুটবল তারকা ছেড়ে দিলেন বার্সেলোনা।