tag: মালয়েশিয়ায় সরকারি আমলাদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার নির্দেশ |
Sun. Oct 25th, 2020

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়

মালয়েশিয়ায় সরকারি আমলাদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার নির্দেশ

1 min read
মালয়েশিয়ায় সরকারি

মালয়েশিয়ায় সরকারি আমলাদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার নির্দেশ। মালয়েশিয়ান সিভিল সার্ভেন্টদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির অন্তর্বর্তীকালীন সরকার। রাজনীতি থেকে দূরে থেকে নিজের প্রফেশনালিজম সমুন্নত রাখা এবং কোনো পক্ষপাতিত্ব ছাড়াই সর্বোচ্চ ও সর্বোত্তম সেবা প্রদানের জন্য এই নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

দেশটির জাতীয় দৈনিক দি স্টারে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, মালয়েশিয়ার উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মালয়েশিয়ান সিভিল সার্ভিসের সদস্যদের রাজনীতি ও পক্ষপাতিত্ব থেকে দূরে থেকে জনগণকে সর্বোত্তম সেবা প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বুধবার প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে সিভিল সার্ভিসের সদস্যদের স্মরণ করিয়ে দেয়া হলো যে, তাদের দায়-দায়িত্ব জনগণের প্রতি।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ‘আপনি যে সেবা দেবেন সেটা যেন সর্বোত্তম নীতিতেই দেয়া হয়। সেবার মাধ্যমেই দেশের জনগণের আস্থা ধরে রাখতে হবে। এর কারণ জনগণের উচ্চ আশা আছে সিভিল সার্ভিসের প্রতি। পরিবর্তন একটি কঠোর এবং জটিল প্রক্রিয়া, কিন্তু দেশের চিফ সেক্রেটারির নেতৃত্বে ১.৬ মিলিয়ন সার্ভেন্ট তাদের দায়িত্ব পালন করছে, যা কোনো ভুল ও বিভ্রান্তিকর নেতিবাচক ধারণা ছাড়াই। সিভিল সার্ভেন্ট সব সময় প্রস্তুত থাকবে ভালোভাবে একটি সুন্দর যোগাযোগ এবং পারস্পারিক কার্য প্রক্রিয়া অনুসরণ করে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে মানিয়ে নিয়ে। এটাই মালয়েশিয়া প্রশাসনের শক্তি।

রাজনীতি থেকে দূরে থাকার নির্দেশ

আরও বলা হয়, ‘সিভিল সার্ভিসের অবশ্যই সব সময় অভিযোজন ক্ষমতা, ধারণক্ষমতা থাকতে হবে।

তার দায়িত্বশীলতার থেকে এবং জনগণের যে প্রত্যাশা আছে, সরকারের যে প্রত্যাশা আছে, সেটাকে ধারণ করতে হবে।

উল্লেখ্য, বর্তমানে মালয়েশিয়ার রাজনৈতিক দোলাচলে দুলছে।

২০১৮ সালে নতুন জোট সরকার গঠন করে।

২২ মাস পর আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান জোট থেকে মাহাথিরের দল পিপিবি এম এবং আনোয়ার ইব্রাহিমের দলের ১১ জন এমপি জোট থেকে বের হলে সংকট সৃষ্টি হয়।

ইতোমধ্যে মাহাথির মোহাম্মদ প্রধানমন্ত্রীর পদ ত্যাগ করেন।

এরপর দেশটির রাজা মাহাথিরকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করেন।

নতুন সরকার গঠনের জন্য রাজা সংসদ সদস্যের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন।

সংখ্যাগরিষ্ঠ দল বা জোট সরকার গঠন করবে।

সরকারের সব সেবা অব্যাহত রাখা, জনগণকে শান্ত ও সচেতন থাকার জন্য পুলিশ অনুরোধ করেছে।

প্রেস বা মিডিয়া দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করছে।

ফলে অতিরঞ্জিত কোনো খবর অশান্ত করছে না।

রাষ্ট্রের সব বিভাগ দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করছে বলে দফতর জানিয়েছে।

এ দিকে দেশটির অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী তুন ডা. মাহাথির মোহাম্মদ বুধবার জাতির উদ্দেশ্যে টেলিভিশন ভাষণে দেন।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোকে আপাতত আলাদা রাখতে হবে।

যদি অনুমতি দেয়া হয় তবে আমি একটি নির্দলীয় প্রশাসন প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করব যা কোনও পক্ষকেই সমর্থন করে না।

শুধু জাতীয় স্বার্থকেই অগ্রাধিকার দেয়া হবে, এটাই আমি করার চেষ্টা করব।

মাহাথির, রাজনৈতিক সংকটের বিষয়ে নীরবতা ভঙ্গ করে গত সোমবার তার আকস্মিক পদত্যাগের কারণ হিসাবে যোগ করেন, রাজনীতিবিদ এবং রাজনৈতিক দলগুলো রাজনীতির প্রতি এতটা উন্মত্ত হয়ে পড়েছিল যে, তারা দেশকে জর্জরিত অর্থনৈতিক ও স্বাস্থ্য বিষয়গুলোকে উপেক্ষা করেছে।

আমি অনেকের কাছে পছন্দ হতে চাই না।

আমি কেবল এমন কিছু করছি, যা আমি দেশের পক্ষে ভালো বলে মনে করি।’

এদিকে বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় রাজার সঙ্গে বৈঠক করেন মাহাথির।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় নিশ্চিত করেছে যে, অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রীকে মালয়েশিয়ার রাজা (সর্বোচ্চ নেতা) সুলতান আব্দুল্লাহ রি’আয়াতুদ্দিন আল-মুস্তফা বিল্লাহ শাহের সঙ্গে দেখা করার জন্য তলব করা হয়েছিল।

এ ছাড়া প্রধান বিচারপতি টেংকু মাইমুন তুয়ান ম্যাটকেও প্রাসাদে ডেকে নেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *