tag: পদ্মাসেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প 'রি ডিজাইন' করার সিদ্ধান্ত। আমাদের খবর
Wed. Oct 28th, 2020

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়

পদ্মাসেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প ‘রি ডিজাইন’ করার সিদ্ধান্ত।

1 min read
পদ্মাসেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প

পদ্মাসেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প ‘রি ডিজাইন’ করার সিদ্ধান্ত। পদ্মাসেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প ‘রি ডিজাইন’ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ত্রুটি সংশোধনের জন্য রেলের গার্ডার সরিয়ে ফেলতে হবে।

সড়কের সঙ্গে রেললাইনের হেডরুম উচ্চতা কমপক্ষে ৫ দশমিক ৭ মিটার করে নতুন ডিজাইন আগামী সপ্তাহে জমা দেবে রেলওয়ে।

শুক্রবার দিনভর পদ্মাসেতু প্রকল্প এলাকায় রেল ও সেতু সচিব এবং প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা প্রকৌশলীরা বৈঠক করেন।

সেখানে রেলওয়ে তাদের ত্রুটি সমাধানে রি-ডিজাইন করার বিষয়টি তুলে ধরে।

সেতু সচিব বেলায়েত হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, আগামী সপ্তাহে রেলওয়ে রি-ডিজাইন জমা দেওয়ার কথা।

রেলসংযোগ প্রকল্পের এই ভুল দ্রুত সমাধান হবে বলে মনে করেন তিনি।

ঝুঁকি নিয়ে প্রায় ১০ তলা উঁচুতে উঠে নির্মাণকাজসহ ত্রুটিপূর্ণ এলাকা পরিদর্শন করেছি।

প্রাথমিকভাবে রি ডিজাইনের মাধ্যমে দ্রুত সময়ের মধ্যে ত্রুটি সংশোধন করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ জন্য বুয়েটের প্যানেল সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীদের সঙ্গে ইতিমধ্যে আলোচনা শুরু করেছি।

রেলওয়ের পক্ষ থেকে যা যা করণীয় তা করা হবে। দুটি প্রকল্পই সরকারের ফাস্ট ট্র্যাকভুক্ত।

পদ্মা সেতু দিয়ে একই দিন ট্রেন চালানোর লক্ষ্যে দ্রুততার সঙ্গে কাজ করছি এবং এটি সমাধানে খুব একটা সময় ব্যয় হবে না।

ত্রুটি সারাতে কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হবে তা এখন বলা যাচ্ছে না। আশা করছি ক্ষয়ক্ষতি তেমন হবে না।

রেলপথ মন্ত্রণালয় ও সেতু বিভাগ সূত্রে জানা যায়, প্রায় এক বছর আগেই পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্প নির্মাণে হরাইজন্টাল ও ভার্টিক্যাল দুই দিকের কাজেই আপত্তি দেয় সেতু বিভাগ

তারা জানায়, সড়কপথের হেডরুম স্ট্যান্ডার্ড হল হরাইজন্টাল ১৫ মিটার, ভার্টিক্যাল ৫ দশমিক ৭ মিটার। এ নিয়মেই কাজ সম্পন্ন করতে হবে।

কিন্তু পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পে এ নিয়ম মারা হয়নি। পদ্মা রেললিংক প্রকল্পে মাত্র ৪ দশমিক ৮ মিটার উচ্চতা দেয়ায় এ সমস্যা হয়েছে।

অপর দিকে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বলছে, ২০১৫ সালে চূড়ান্ত সমীক্ষা অনুযায়ী কাজ সম্পন্ন করছিলেন তারা।

সাম্প্রতিক সময়ে সেতু বিভাগ এ আপত্তি জানিয়েছে।

পদ্মাসেতুর রেল সংযোগ

সেতু সচিব বেলায়েত হোসেন গতকাল শুক্রবার সাংবাদিকদের জানান, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও প্রকৌশলীরা ত্রুটি সমাধানে রি-ডিজাইন করার বিষয়টি তুলে ধরেছেন।

রেলপথ মন্ত্রণালয় আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সমাধানের পথ লিখিতভাবে জানাবে। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যেই এ সমস্যা সমাধান হবে।

এ জন্য উভয় মন্ত্রণালয় একটি বিশেষ সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করছে।

বিষয়টি নিয়ে রেলপথ মন্ত্রণালয় ও সেতু বিভাগ বুয়েটের অধ্যাপক শামিমুজ্জামান বসুনিয়াসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

এদিকে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পে সংশ্লিষ্ট বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা-প্রকৌশলী জানান, রেল সংযোগ প্রকল্পের ত্রুটি সমাধান ইঞ্জিনিয়ারিং প্রক্রিয়ায় হচ্ছে। এ জন্য বর্তমান যে গার্ডার আছে তার পরিবর্তন করাসহ আরও কী কী করা যায় তা নিয়ে সংশ্লিষ্টরা বারবার বৈঠক করছেন। ত্রুটি সমাধান রেলওয়েকেই করতে হবে- এমনটা জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে শুধু গার্ডার সরিয়ে যদি এ সমস্যা সমাধান করা না যায় তাহলে ক্ষতির পরিমাণ অনেক বাড়বে। সেতু বিভাগ সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে পদ্মা সেতুর অগ্রগতি ৮৯ দশমিক ২৫ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *