April 20, 2021

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়


Warning: sprintf(): Too few arguments in /home/customer/www/amaderkhabor.com/public_html/wp-content/themes/newsphere/lib/breadcrumb-trail/inc/breadcrumbs.php on line 254

গায়ের রঙ নিয়ে শুনতে হয়েছে নানা কথা, মুখ খুললেন বিপাশা।

1 min read
গায়ের রঙ নিয়ে শুনতে হয়েছে নানা কথা

গায়ের রঙ নিয়ে শুনতে হয়েছে নানা কথা, মুখ খুললেন বিপাশা। ভারতের বলিউডের খ্যাতিনাম অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিতি বিপাশা বসু। খোলামেলা দৃশ্যে সাবলীলভাবে সিনেমায় অভিনয় করে বরাবরই ছিলেন আলোচনায় তুঙ্গে। এই ‘শ্যামবর্ণা সুন্দরীকে ছোট থেকেই গায়ের রং নিয়ে নানান কথা শুনতে হয়েছে। সম্প্রতি প্রসাধনী ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি’ থেকে ফেয়ার শব্দটি বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্তে বেশ খুশি বঙ্গ তনয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় লম্বা পোস্টে নিজের ‘শ্যামবর্ণা’ হওয়া নিয়ে অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরলেন এই সুন্দরী অভিনেত্রী। সেখান থেকে কিছু অংশ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

 

বিপাশা লিখেছেন, ছোট থেকেই আমি শুনে এসেছি, সোনির থেকে বনি কালো। ওর গায়ের রং একটু চাপা না?

যদিও আমার মা-ও শ্যামবর্ণা, এবং আমি তার মতোই দেখতে।

কিন্তু আমি ছোট থেকেই শুনতাম, বিভিন্ন আত্মীয়স্বজনরা আমার গায়ের রং নিয়ে আলোচনায় ব্যস্ত হয়ে উঠতেন।

বুঝতাম না কেন? মাত্র ১৬ বছর বয়স থেকে আমি মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছি।

আমি সুপার মডেল প্রতিযোগিতা জিতেছিলাম, সংবাদ মাধ্যমে হেডলাইন হলো শ্যামবর্ণা কলকাতার তরুণী সুপারমডের প্রতিযোগিতার বিজেতা।

আমি বিস্মিত হতাম, সেই আমার বর্ণনায় শ্যামবর্ণা

 

এই নায়িকা আরও লিখেছেন, পরবর্তীকালে যখন আমি নিউইয়র্ক প্যারিসে গেলাম মডেলিংয়ের জন্য। সেখানে দেখলাম, গায়ের রং-এর জন্যই আমি গুরুত্ব পাচ্ছি। পরবর্তীকালে দেশে ফিরে প্রথম ছবির প্রস্তাব পেলাম, তখন ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আমি একেবারেই অজ্ঞাত পরিচয়। সিনেমায় কাজ করে ভালোবাসাও পেলাম। তবে আমার নামের সঙ্গে শ্যামবর্ণা শব্দটি থেকেই গেল। পরবর্তীকালে এই শব্দটির প্রতিই ভালোবাসা জন্ম গেল। দেখলাম দর্শকরা এই শ্যামবর্ণা মেয়েটিকেই পছন্দ করছে।