tag: কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে একদিনে ৪ ম্যাচ। আমাদের খবর
Thu. Oct 29th, 2020

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়

কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে একদিনে ৪ ম্যাচ।

1 min read
কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে

কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে একদিনে ৪ ম্যাচ। আগামী ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে সময়সূচি চূড়ান্ত করেছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা। আসরের ইতিহাসে এবারই প্রথম গ্রুপ পর্ব চলাকালে প্রতিদিন চারটি করে ম্যাচ আয়োজিত হবে। বুধবার নিজেদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ৩২ দলের বিশ্বকাপের সময়সূচি প্রকাশ করেছে ফিফা। ২১ নভেম্বর শুরু হয়ে ফুটবলের এই মহাযজ্ঞ চলবে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

সারা বিশ্বে মহামারি করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর প্রাদুভাবে আক্রান্ত বিশ্বে বহু মানুষ। আশা করছি এই সময়ের মধ্যে চলে যাবে।

সাধারণত জুন-জুলাই মাসে বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হলেও সে সময় কাতারে তীব্র গরম থাকার কারণে প্রতিযোগিতাটির সূচি পাল্টে নভেম্বর-ডিসেম্বরে নেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের ফুটবলপ্রেমীদের জন্য সুখবর রয়েছে এবারের সূচিতে কারণ, ম্যাচগুলো মাঠে গড়াবে বেশ সুবিধাজনক সময়ে।

কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে খেলা গুলি বাংলাদেশ সময় অনুযায়ী দিনের প্রথম ম্যাচ শুরু হবে বিকাল ৪টায়।

তার পরের খেলা দুইটি ম্যাচ শুরু হবে যথাক্রমে সন্ধ্যা ৭টা ও রাত ১০টায়।

শেষ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে দিবাগত রাত ১টায়। গ্রুপ পর্বের শেষ রাউন্ডে অবশ্য একই সময়ে দুটি করে খেলা মাঠে গড়াবে।

যথাক্রমে রাত ৯টা ও দিবাগত রাত ১টায় শুরু হবে ম্যাচ গুলো।

কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে খেলা গুলি  বিটিভি লাইভ, গাজী টিভি লাইভ,  জিটিভি, এনটিভি লাইভ, গাজী টিভি, লাইভ টিভি চ্যানেল গুলি প্রচার করবে।

৬০ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন আল বাইত স্টেডিয়ামে হবে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ। আর ফাইনালের ভেন্যু ৮০ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতাস ম্পন্ন লুসাইল স্টেডিয়াম

মোট আটটি স্টেডিয়ামে খেলা গুলি অনুষ্ঠিত হবে আসরের ৬৪টি ম্যাচ।

এক স্টেডিয়াম থেকে আরেক স্টেডিয়ামের দূরত্ব বেশি না হওয়ায় একই দিনে একাধিক ম্যাচ মাঠে বসে দেখার অভূতপূর্ব সুযোগ পাবেন ফুটবলপ্রেমীরা।

বিশ্বকাপের মূলপর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হবে ২০২২ সালের মার্চ বা এপ্রিলে দিকে।

তারপর নির্দিষ্ট ম্যাচের ভেন্যু ও সময় চূড়ান্ত করা হবে।

আরো পড়ুনঃ ইউরোপীয় নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেল ম্যানসিটি।

আয়োজক কোম্পানির প্রধান নির্বাহী নাসের আল খাতের বলেছেন, বিশ্বকাপ আয়োজনের কাজ পরিকল্পনা অনুসারে এগিয়ে চলেছে।

রাস্তা ও অন্যান্য অবকাঠামোর ৯০ শতাংশ কাজ প্রায় শেষ হয়ে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *