tag: করোনাভাইরাস আতঙ্কে মুরগীর কেজি ৩০ টাকা। আমাদের খবর
Wed. Oct 28th, 2020

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়

করোনাভাইরাস আতঙ্কে মুরগীর কেজি ৩০ টাকা

1 min read
করোনাভাইরাস আতঙ্কে মুরগী

করোনাভাইরাস আতঙ্কে মুরগীর কেজি ৩০ টাকা। করোনা আতঙ্কের কোপ পড়েছে ভারতের মুরগির মাংসের বাজারে।

বেশ কিছুদিন ধরেই এই আতঙ্কের জেরে দেশটিতে কমে গেছে মুরগির মাংসের দাম।

যদিও চিকিৎসকরা সাফ জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসের সঙ্গে মুরগির মাংসের কোনো যোগ নেই। আর এবার গুজবের জন্য সেই দাম গিয়ে পৌঁছেছে ৩০ টাকায়।

ভারতের তেলেঙ্গানা, পশ্চিমবঙ্গসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে এমন অবস্থা বিরাজ করছে।

তেলেঙ্গানার রাজধানী হায়দরাবাদের বাজারে মুরগির মাংসের দাম এই মুহূর্তে কেজি প্রতি ৩০ টাকায় নেমে এসেছে।

পরিস্কার করা মুরগীর কেজি প্রতি দাম ৪২ টাকা, চামড়া ছাড়া মুরগির দাম কেজি প্রতি ৫০ টাকা।

তেলেঙ্গানা ব্রিডার্স অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য উমা মাহেশ্বর রাও বলছেন, মুরগির মাংসের চাহিদায় এরকম ঘাটতি হয়েছে কারণ মানুষ ভাবছে এর থেকেই করোনাভাইরাস ছড়াচ্ছে।

আমাদের যা বাড়তি মুরগি আছে তা বিক্রি করে দেওয়ার জন্যই দাম কমানো হয়েছে।

উমা মাহেশ্বর বলছেন, এখনও খুচরো ব্যবসায়ীরা ১৩০ টাকা কেজিতে মুরগির মাংস বিক্রি করছেন। কিন্তু যাতে বিক্রি হয়ে যায় তাই দাম কমানোর কথা বলা হচ্ছে।

তবে শুধু হায়দরাবাদই নয়। পুণে ও বেঙ্গালুরুতেও মুরগির মাংসের দাম অনেকটাই কমে গিয়েছে।

পুণে ব্রিডার্স অ্যাসোসিয়েশনের বসন্ত কুমার বলছেন, পুণেতে এখন কেজি প্রতি মুরগির মাংসের দাম ৮ থেকে ১২ টাকা কম।

কিন্তু প্রোডাকশন কস্ট থাকে ৭৫ টাকা। মুরগির মাংসের থেকেই করোনাভাইরাস ছড়াচ্ছে এরকমই একটি গুজবের কারণে দাম এত কমে গিয়েছে।

আমরা মহারাষ্ট্র সরকার ও কেন্দ্রের কাছেও সাহায্য চেয়েছি। না হলে বড় ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে।

এই গুজব যে পুরোটাই মিথ্যে তা বোঝানোর জন্য গত ২৮ ফেব্রুয়ারি পোলট্রি ফার্মার্সদের একটি মেলায় এক টুকরো মুরগির মাংস খেয়েছিলেন তেলেঙ্গানার নগরোন্নায়ন মন্ত্রী কেটি রামা রাও।

কিন্তু তাতেও কিছু হয়নি। তাই ক্রমশ কমেই যাচ্ছে মুরগির মাংসের দাম।

প্রসঙ্গত, হোয়াটসঅ্যাপে একটি মেসেজ ভাইরাল হয়েছিল।

সেই মেসেজে বলা হচ্ছিল, মুরগির মাংসের দ্বারাই সংক্রমিত হচ্ছে করোনা ভাইরাস। তারপরই ভারতে মুরগির দাম কমতে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *