tag: আমড়া ফলের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা। আমাদের খবর
Thu. Oct 22nd, 2020

আমাদের খবর

খবরের সাথে সব সময়

আমড়া ফলের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা।

1 min read
আমড়া ফলের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা

আমড়া ফলের পুষ্টিগুণ ও স্বাস্থ্য উপকারিতা। আমড়া অন্যান্য ফলের মধ্যে একটি সুস্বাদু ফল। আমাদের দেশে এই পুষ্টিকর ফলটি দুইটি প্রজাতির চাষ হয়ে থাকে। দেশি আমড়া ও বিলাতি আমড়া। বিলাতি আমড়া দেশি আমড়ার মতো টক নয়। এটি খেতে টক-মিষ্টি স্বাদের। এতে শাঁস বেশি, আকারেও বেশ বড় হয়। বিলাতি আমড়া কাঁচা খাওয়া যায়।

বিলাতি ও দেশি দুই ধরনের আমড়া থেকেই সুস্বাদু আচার, চাটনি এবং জেলিও তৈরি করা যায়। তরকারি হিসেবে রান্না করেও  খাওয়া যায়। মুখে রুচি বৃদ্ধিসহ অসংখ্য গুণাগুণ রয়েছে এই আমড়া ফলটির।

গোল্ডেন আপেলখ্যাত আমড়ার বৈজ্ঞানিক নাম Stondia Dulcis। এটি Anacardiaceae পরিবারভুক্ত। আমড়ায় জলীয় অংশ ৮৩.২, খনিজ ০.৬, লৌহ ০.৩৯, আঁশ ০.১, চর্বি ০.১, আমিষ ১.১, শর্করা ১৫, ক্যালসিয়াম ০.৫৫ শতাংশ।

আমড়া

পুষ্টি ও খাদ্যবিজ্ঞানীরা বলেন, এই আমড়ায় প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি, আয়রন, ক্যালসিয়াম আর আঁশ আছে।

যেগুলো শরীরের জন্য খুব দরকারি। হজমেও এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

তাই তেল ও চর্বিযুক্ত খাদ্য খাওয়ার পর আমড়া খেলে হজমের জন্য খুবই ভালো।

আমড়া ফলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে ফলে এটি খাওয়ার ফলে স্কার্ভি রোগ থেকে দুরে থাকা যায়।

বিভিন্ন প্রকার ভাইরাল ইনফেকশনের বিরুদ্ধেও লড়তে পারে আমড়া ফলের পুষ্টিগুণ। অসুস্থ ব্যক্তিদের মুখের স্বাদ বাড়িয়ে দেয়।

 

সর্দি-কাশি-জ্বরের উপশমেও আমড়া অত্যন্ত উপকারী। শিশুদের দৈহিক গঠনে ক্যালসিয়াম খুব দরকারি।

ক্যালসিয়ামের ভালো উৎস এই আমড়া। শিশুদের এই ফল খেতে উৎসাহিত করা যেতে পারে।

এছাড়া এটি রক্তস্বল্পতাও দূর করে। কিছু ভেষজ গুণও আছে এই  আমড়ায়।

এই আমড়া ফলুট পিত্তনাশক ও কফনাশক তাই আমড়া খাওয়ার ফলে মুখে রুচি আসে, ক্ষুধাও বৃদ্ধি করে।

আমড়ায় থাকা ভিটামিন সি রক্ত জমাট বাঁধতে সাহায্য করে।

খাদ্যে থাকা ভিটামিন এ এবং ই এটির সঙ্গে যুক্ত হয়ে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে দেহকে নানা ঘাত-প্রতিঘাত থেকে রক্ষা করে।

দাঁতের মাড়ি শক্ত করে, দাঁতের গোড়া থেকে রক্ত, পুঁজ, রক্তরস বের হওয়া প্রতিরোধ করে আমড়া।

আমড়ার খোসার মধ্যে আছে প্রচুর পরিমাণের ভিটামিন সি এবং ফাইবার আঁশ, যা মানবদেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি ও শক্তিশালী করে। আঁশ জাতীয় খাবার পাকস্থলীর জন্য অত্যান্ত উপকারী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *